‘নাস্তিকরা সন্ত্রাসী’, সৌদি আরবের ঘোষণার সঙ্গে বাংলা একাডেমির কর্মকান্ডের মিল

Bangladesh-Atheist-Blogger-Killed-as-Fears-of-Radical-Islamism-Grow.jpg

গত বছর সৌদি আরব তার দেশে নাস্তিকদের সন্ত্রাসী আখ্যা দিয়ে বেশ কয়েকটি আইন জারি করে যার অধীনে বেশ কয়েকজন ব্লগার-লেখক কারাবন্দী আছেন। আইনগুলো জারি করা জরুরী হয়ে ওঠে কেননা উদারপন্থী লেখক-কর্মী রায়েফ বাদাউইকে আটক করার পর থেকেই সৌদিতে মুক্তমতের উত্থান নিয়ে শঙ্কা দেখা দেয় রাজপরিবারে এবং এজন্য ইসলামের মৌল বিষয় নিয়ে কোনোরকম সমালোচনা, সৌদি রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে যেকোনো রকম কর্মকাণ্ডকে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড হিসেবে বিবেচনা করতে ডিক্রি জারি করেছে সৌদি। বাংলাদেশে এখনও পযন্ত নাস্তিকদের সরাসরি সন্ত্রাসী ঘোষণা না দিলেও ৫৭ ধারায় লেখক-ব্লগার-প্রকাশকদের গ্রেফতারের ঘটনায় বাংলাদেশ সরকার ও তার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান একই সৌদী আরবীয় নীতি অনুসরণ হচ্ছে বলে ধারণা করা যায়। ব্লগার হত্যাকান্ডগুলোর ক্ষেত্রে বারবার সরকারের বিরূপ মনোভাব আমরা আগেই দেখেছি।

গত বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানার অভিযোগে রোদেলা প্রকাশনীর স্টল বন্ধ করে দেয় বাংলা একাডেমি, স্টলের সামনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। রোদেলা প্রকাশনী গতবারের বইমেলায় ‘নবী মুহাম্মদের (স.) ২৩ বছর’ নামে একটি বই প্রকাশ করে। বইটি মেলায় প্রকাশ হওয়ার পরপরই বিভিন্ন ওলামা সংগঠন বইটি বাজেয়াপ্ত ও প্রকাশনীকে নিষিদ্ধ করার জন্য চাপ দিয়ে আসছিল। তার কাছে নতি স্বীকার করে বাংলা একাডেমি তাদের স্টল বন্ধ করে দেয়। অন্যদিকে এ বছরের মেলায় বন্ধ করে দেয়া হয় বদ্বীপ প্রকাশনীর স্টল। ‘ইসলাম বিতর্ক’ বইটি লেখায় ও প্রকাশ করায় এবার শুধু স্টল বন্ধ করে থেমে থাকেনি বাংলা একাডেমি। পুলিশ ডেকে কোমরে রশি বেঁধে আশি বছরের বৃদ্ধ প্রকাশক শামসুজ্জোহা মানিককে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়, তার নামে মামলা হয়, আজও তার মুক্তি মেলেনি। তিনি জেলখানার গারদ থেকে আর জীবিত অবস্থায় বেরুতে পারবেন কিনা জানি না। ২০১৭ এর বইমেলা সামনে, স্টল বরাদ্দ শুরু হয়েছে। স্টল নিতে গিয়ে শ্রাবণ প্রকাশনীর রবীন আহসান জানতে পারেন, তার প্রকাশনীকে দু বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে। কারণ কি? কারণ তিনি বদ্বীপ প্রকাশনী নিষিদ্ধের প্রতিবাদ করেছিলেন, দাঁড়িয়েছিলেন প্রতিবাদে। বাংলা একাডেমির আইনে কোথায় কত ধারায় কি আছে তা নিয়ে কিছু লিখছি না, কেননা সেসব আইনত গুরুত্বপূর্ণ, তা নিয়ে অন্য অনেকে লিখবেন।

সমগ্র ঘটনার সংবাদ গত ক’দিন ধরে দেখে মনে হল বাংলা একাডেমির মাঝে মৌলবাদের সমর্থকরা ভালভাবে শেকড় গেড়ে বসেছে। বরিশালের মানুষ রবীন আহসানের প্রকাশনী ‘শ্রাবণ’কে তারা বইমেলায় নিষিদ্ধ করে একদিকে যেমন বাক স্বাধীনতাকে ব্যাহত করেছে অন্যদিকে এ তরুণ ও সৃজনশীল প্রকাশককে চাপাতির নিচে যাবার জন্য হাইলাইট করে ফেলেছে। এর আগে গত বছর পহেলা বৈশাখে বাংলাদেশ পুলিশ এলজিবিটিকিউ রাইট একটিভিস্টদের বাংলা নববর্ষের রেইনবো রেলি আটকে দেয় এবং গ্রেফতার করেছিল কয়েকজনকে। এরপরই দু’জন সমকামী আন্দোলনের কর্মীকে ঘরে ঢুকে হত্যা করে ইসলামী জঙ্গীরা।  রবীন আহসান নিজে ইলাসট্রেশন করেন, ছড়া লেখেন, লিটলম্যাগের সম্পাদক, প্রকাশনীর প্রকাশক, প্রগতিশীল মানুষ। একসময় তিনি ‘শ্রাবণের আড্ডা’ নামে লিটলম্যাগ করতেন। এবং নব্বই দশকের কবিদের বই প্রকাশের মাধ্যমে তার ‘শ্রাবণ’ প্রকাশনী শুরু করেন। আজকে যে হুটহাট তরুণেরা প্রকাশনী করে ফেলছে, একটা জোয়ার তৈরি হয়েছে সেলফ পাবলিশিং এর, তার পেছনে নব্বই দশকের শেষে ও শূন্য দশকের প্রথমে রবীন আহসানের মতো মুক্তমনা তরুণ গুটিকয় প্রকাশকদের বড় ভূমিকা আছে। তিনি শাহবাগভিত্তিক প্রতিবাদ আন্দোলনে অতিপরিচিত মুখ, সে কারণে এবার তার ওপরে অদৃশ্য মহল খড়গহস্ত হয়েছে। তার অনেক বন্ধুরা মিডিয়ায় থাকায় তার বক্তব্য বিভিন্ন টেলিভিশনে দেখা যায়, টেলিভিশনেও তিনি সরকারী কর্তাব্যক্তিদের উপস্থিতিতে সরকারের সমালোচনা করেন ব্লগার-লেখক-প্রকাশক হত্যা, বদ্বীপ প্রকাশনী বন্ধের প্রতিবাদে, প্রকাশক শামসুজ্জোহা মানিককে পুলিশের হাতে তুলে দেয়ার প্রতিবাদে।  রবীন আহসান যিনি সারাটা তারুণ্য ব্যয় করলেন বাংলাদেশের বুদ্ধিভিত্তিক আন্দোলনে, তাকে রাষ্ট্রের একটি অঙ্গ আজ নিষিদ্ধ করেছে, তারা তাকে চিনতে পারে না। রবীন আহসানের কদর বোঝে জার্মানীর ফ্রাঙ্কফূর্ট বইমেলা, তিনি সেখানেও যোগ দিয়েছিলেন তাদের আমন্ত্রণে।

আমরা যদি দেখি তাহলে আলি দস্তির বইতে কি পাই? বইটি নবি মুহম্মদের আংশিক জীবনী। কিন্তু তা অলৌকিকতার আলোকে নয়। আলি দস্তির মতে, ‘‘অলৌকিকতা কোনো ঐশী নির্দেশ নয়। অলৌকিকতা কেবল দুর্বলচিত্তের জনগণের কাছে ধোঁয়াশার জালে আবদ্ধ সংস্কার নয়। কিংবা নয় কোনো ধরনের বিভ্রম। অলৌকিকতা একটি অর্থবহ বিষয়। একজন ব্যক্তি তার দক্ষতা, কৌশল, বুদ্ধিমত্তা আর পরিশ্রমের সমন্বয় ঘটিয়ে আপাত ‘অসাধ্য সাধন’ করতে সক্ষম হন,তখন সেই কাজকে অলৌকিক হিসেবে বিবেচনা করা যায়। নবি মুহাম্মদও এই অর্থে অসাধ্য সাধন করেছেন। প্রায় একা একজন মানুষ অসাধারণ পর্যবেক্ষণ ক্ষমতা আর কৌশল অবলম্বন করে নিজ জাতির বিরুদ্ধে জীবন বাজি রেখে প্রচণ্ড লড়াই করে নিজস্ব ধর্মমত প্রতিষ্ঠা করেছেন। অসংখ্য মানুষের পূর্বতন ধর্মমতের বিলোপ ঘটিয়েছেন।’’ অন্যদিকে ‘ইসলাম বিতর্ক’ বইটির অনুচ্ছেদগুলো যদি দেখি–১. কাশ্মীর: ইসলামের প্রসার এবং সুফীদের সন্ত্রাস ২. পাকিস্তানের তালেবানীকরণ: আদিপিতাদের স্বপ্ন পূরণ ৩. মুসলমানদেরকে আক্রমণ ও হত্যার দরুণ কি মুহাম্মদ মদীনার ইহুদীদেরকে উচ্ছেদ করেন? ৪. মুসলিম মানসের যৌন বিকৃতি ৫. আরও বড় অপরাধ ইসলামকে ছেড়ে ইউরোপীয় দাস ব্যবসার নিন্দা করা ৬. যয়নব ও জানোয়ার: মুহাম্মদের সঙ্গে যয়নবের স্বর্গীয় বিবাহ এবং যায়িদের জীবন ৭. ইসলামের পতন অনিবার্য, পশ্চিমেরও ৮. সম্পদ লুকানোর কৌশলঃ বোরকা ও নেকাবের অবাক করা উৎস ৯. ক্রুসেডঃ ইসলামী আগ্রাসনের প্রতিক্রিয়া ১০. ইসলামে ধর্ষণ এবং তার চার সাক্ষী ১১. বনি ক্বারাইজার হত্যাযজ্ঞঃ মুসলিম উম্মাহর সবচেয়ে খুশির দিন  ১২. ইসলামে দাসপ্রথা এবং পাকিস্তানে এর চর্চা  ১৩. ইসলামের সংস্কার একটি অলীক কল্পনা  ১৪. আধুনিক সেরা ইসলামী মিথ্যাচার।

মোটামুটি দু’টি বইয়ের বিষয়ে বোঝা যাচ্ছে নাস্তিকতা ও  ইসলামকে যুক্তির নিরিখে আলোচনা ও সমালোচনা করা হয়েছে, যা মোল্লা সমাজ নিতে পারেনি। এবং সে দুটো বই মেলায় হামলা হতে পারে এ জুজু দেখিয়ে ব্যান করানো হয়েছে, প্রকাশনীর স্টল বন্ধ করা হয়েছে। তাদের কর্মকান্ড স্পষ্ট মনে প্রশ্ন জাগায় যে একাডেমির কথা ছিল বুদ্ধির উৎকর্ষতার জন্য কাজ করবে, মুক্তভাবে কাজ করবে তা কেন ‍যুক্তিবাদের বিরুদ্ধে দাঁড়াবে, যদি না বিশ্বাস করে সৌদি আরবের মতো নাস্তিকরা সন্ত্রাসী? ইসলামের কোন সমালোচনা গ্রহণযোগ্য না এর আগেও সরকারের প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে অনেক আগে বলেছেন, তাদের বক্তব্য ও স্বায়িত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান একাডেমির কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে তারা যে সৌদি আরবের নীতিতে পরিচালনা হচ্ছে সবকিছু তা আবারও প্রমাণিত হল। শুধু ঘোষণাটা বাকী।

 

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s